এইমাত্র দীর্ঘদিন পরে নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করল ঐক্যফ্রন্ট

বিএনপি
Share Button

এইমাত্র দীর্ঘদিন পরে নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করল ঐক্যফ্রন্ট

আজ বৃহস্পতিবার (৬ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে ১১ টায় নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন।দীর্ঘদিন পর নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করেছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। আগামী ১০ ডিসেম্বর সোমবার বেলা ২ টায় ঢাকার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জনসভা করবে বিএনপির নেতৃত্বাধীন জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট।সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ জনসমর্থন শূন্য, তাই একতরফা নির্বাচনের সমস্ত কলা কৌশল অবলম্বন করছে। আর এ কাজে সরকারকে সার্বিক সহযোগিতা করছে বর্তমান নির্বাচন কমিশন।সরকার নির্বাচনকে প্রহসনে পরিণত করছে বলে মন্তব্য করেন রিজভী।

এদিকে আগামী শনিবার(৮ ডিসেম্বর) জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের ইশতেহার ঘোষণা করা হবে। সব দলের সমন্বয়ে ইশতেহার হবে। বললেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ড. কামাল হোসেন।বুধবার বিকেলে নয়া পল্টনের জামান টাওয়ারে ঐক্যফ্রন্টের নতুন কার্যালয় উদ্বোধন শেষে তিনি এসব কথা বলেন।কামাল বলেন, শরিকদের মধ্যে আসন বিন্যাসের বিষয়টি পরে জানানো হবে।ড. কামাল দাবি করেন, জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচনে অংশ নেয়ায় অনিশ্চিয়তায় পড়েছে সরকার।তিনি আরও বলেন, সবাইকে ভোট কেন্দ্র পাহারা দিতে হবে। আর জন্য সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে, সরকার যাতে ২০১৪ সালের মত আরেকটা যেনতেন নির্বাচন করতে না পারে।

ড. কামাল দাবি করেন, ছোট ছোট অজুহাতে আমাদের ১৪১ প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে অথচ সরকার দলীয় বিভিন্ন প্রার্থীরা বড় বড় ঋণখেলাপি হলেও তাদের মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে।ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থীদের আপিল নিস্পত্তির ক্ষেত্রে সময়ক্ষেপণ আমাদের উদ্বেগের বড় কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে বলেও মনে করেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের এ শীর্ষ নেতা।এসময় জেএসডি সভাপতি আসম আব্দুর রব, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, নাগরিক ঐক্যের আহবায়ক মাহমুদুর রহমান মান্নাসহ ঐক্যফ্রন্টের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

Share Button