দরজার ফাঁক দিয়ে কোটি কোটি টাকা পাচার!

অর্থনীতি
Share Button

দরজার ফাঁক দিয়ে কোটি কোটি টাকা পাচার!

বিশ্বজুড়ে রয়েছে আন্তর্জাতিক চোরাকারবারিদের নেটওয়ার্ক। বিমানবন্দরের সর্বাধুনিক নিরাপত্তাব্যবস্থা ফাঁকি দিয়ে দেদার চলে তাদের কারবার। অবশ্য বিমানবন্দর ব্যবহার করে স্বর্ণ বা মাদক পাচার নতুন কিছু নয়।

এমন আন্তর্জাতিক চক্রের তিন সদস্য ধরা পড়েছে কলকাতা বিমানবন্দরে। সোমবার দেশটির ডিরেক্টরেট অব রেভিনিউ ইন্টেলিজেন্সের (ডিআরআই) সদস্যরা তাদের গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারের পর চোরাকারবারির টাকা পাচারের বেশ চমকপ্রদ তথ্য দিয়েছে তারা। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

গ্রেফতারকৃতদের থেকে নগদ ৮০ হাজার ডলার (প্রায় ৬০ লাখ টাকা) উদ্ধার করেছে ডিআরআই। বিদেশ থেকে চোরাই পথে আনা স্বর্ণ ও মাদকের মূল পরিশোধের জন্যই ওই টাকা দিতে বিমানবন্দরে গিয়েছিল তারা।

পুলিশের উদ্ধৃতি দিয়ে খবরে বলা হয়েছে, কলকাতা বিমানবন্দরে যাত্রীদের তল্লাশি শেষে নিরাপত্তাবেষ্টনীতে প্রবেশ করা হয়। বেষ্টনীতে প্রবেশের পর তাদের আর তল্লাশি করার প্রয়োজন হয় না।

কলকাতা বিমানবন্দরে অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক রুটের যাত্রীদের জন্য আলাদা নিরাপত্তাবেষ্টনী রয়েছে। তবে দুই নিরাপত্তাবেষ্টনীর মধ্যে একটি কাচের দরজা রয়েছে। দরজার দুই অংশ লোহার শিকল দিয়ে আটকানো।

স্বর্ণ বা মাদক পাচারের টাকা পরিশোধ করতে ওই কাচের দরজাটিই ব্যবহার করে চোরাকারবারিরা। দরজার দুই অংশের মাঝে সামান্য ফাঁকা জায়গা রয়েছে। সেখানে থেকেই কোটি কোটি টাকা মূল্যের ডলার পাচার করে তারা। ফাঁকা দিয়ে ডলার ঢুকিয়ে দিলে অন্য পাশ থেকে তা তুলে নেয় আরেকজন, যাকে আন্তর্জাতিক রুটের জন্য ইতিমধ্যেই তল্লাশি করে নিরাপত্তাবেষ্টনীর মধ্যে নেয়া হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, কয়েক মাসে এভাবে কোটি কোটি টাকার ডলার পাচার হয়েছে। যার বেশির ভাগ অর্থ ব্যাংকে পাঠানো হয়েছে।

সূত্রঃ যুগান্তর

Share Button