কেমন আছেন নাসির

খেলা
Share Button

‘এমন বড় ইনজুরিতে আগে পড়িনি। তিনটা অস্ত্রোপচার লেগেছে। খুব ভড়কে গিয়েছিলাম। অস্ত্রোপচারের পর স্ক্রাচে ভর দিয়ে হাঁটতে শুরু করলাম। আমার কাছে সময়টা দুঃস্বপ্নের মতো।’ ইনজুরি কাটিয়ে অনুশীলনে ফেরা নাসির হোসেন এমনটাই বলেন। গেল রোববার দীর্ঘ আট মাস পর নেটে ব্যাট হাতে নামেন নাসির হোসেন। এতো দিন ক্রিকেটের বাইরে ছিলেন। আবার নতুন করে শুরু করতে হবে তার। ঘরের মাঠে বিপিএল ফর্মে ফেরার ভালো একটা আসর তার জন্য।

গেল এপ্রিলে ফুটবল খেলতে গিয়ে ডান হাঁটুর লিগামেন্ট ছিড়ে যায় তার। এরপর বিসিবি’র পক্ষ থেকে পাঠানো হয় অস্ট্রেলিয়ায়। নাসির তখনও ভাবতে পারেনি অস্ত্রোপচারের টেবিলে উঠতে হবে তার। ইনজুরিতে পড়ার আগে দারুণ ফর্মে ছিলেন তিনি। বাংলাদেশ এ দলের হয়ে ভালো পারফর্ম করেন। জাতীয় দলে নিজের জায়গা পাকা করার আশা করছেন এমন সময় ইনজুরিতে পড়েন নাসির।

নাসির বলেন, ‘তখন আমি দারুণ ফর্মে ছিলাম। একটা সেঞ্চুরি পেয়েছিলাম। তবে অতীত নিয়ে ভেবে লাভ নেই। আমি খুব ভাগ্যে বিশ্বাসী। আমি মনে করি, ভাগ্যে যা লেখা আছে তা খন্ডানো যাবে না। আমি শুধু সামনে তাকাতে চাই। পুর্নবাসনের এই সময়টা আমাকে অনেক কিছু শিখিয়েছে। এই ২০১৮ সালে অনেক কিছু ঘটেছে আমার জীবনে। একেক সময় সবকিছুতে বিরক্ত হয়ে যেতাম। ক্রিকেট আমাকে নাসির বানিয়েছে। অথচ আমার খেলা, জীবন এসব নিয়েও অস্বস্তি লাগতো। আমি তখন শুধু একা না থাকার চেষ্টা করছি।’

ইনজুরি থেকে ফেরার পর নাসির আরও ভালো ক্রিকেট খেলার কথা বলেছেন, ‘কঠিন সময় মানুষকে শক্ত বানায়। অনেক ক্রিকেটারকে দেখেছি যারা ইনজুরি থেকে ফিরে আরও ভালো খেলতে শুরু করেছেন। আমিও দারুণভাবে ফিরতে চাই। আট মাস অনেক সময়। এ সময় আমি খেলা দেখেছি এবং নিজেকে নিয়ে শুধু ভেবেছি। এখন বিকেএসপিতে গিয়ে অনুশীলন করতে চাই। ফিরতে চাই যত দ্রুত সম্ভব।’

কিন্তু জাতীয় দলে ঢোকা বেশ শক্ত কাজ। নাসির জানেন সেটাও, ‘যারা দল থেকে ছিটকে গেছেন ভালো খেলেও তাদের দলে ফেরা কঠিন হয়ে গেছে। কারণ এখন দলের প্রত্যাশা অনেক বেশি। আমি এখন দলের বাইরে। নতুনদের থেকে অনেক বেশি ভালো খেলেই এখন আমাকে দলে ফিরতে হবে। আমি মনে করি, জাতীয় দলের দরজা সবার জন্যই খোলা।’

খবরঃ সমকাল

Share Button