গঙ্গা নদী রক্ষায় ১১২ দিন অনশন করে মারা গেলেন অধ্যাপক

আন্তজার্তিক
Share Button

ভারতের গঙ্গা নদী বাঁচাতে ১১২ দিনের আমরণ অনশনের পর অবশেষে মারা গেলেন এক অধ্যাপক। গঙ্গা নদীতে বাঁধ দেয়ার প্রতিবাদে গত ২২ জুন থেকে হরিদ্বারে আমরণ অনশন করা দেশটির কানপুর আইআইটি সাবেক অধ্যাপক জি ডি আগরওয়াল বুধবার শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। দীর্ঘদিন ধরে তিনি ভারতে সব হাইড্রো ইলেক্ট্রিক প্রজেক্ট বন্ধের জন্য সরকারের কাছে দাবি জানিয়ে আসছিলেন। অনশনের ১১১ দিনের মাথায় অধ্যাপক আগরওয়ালকে মঙ্গলবার পানি পানের জন্য অনুরোধ করেছিলেন ডাক্তাররা। কিন্তু তিনি পানি পান করেননি। এর পরে তার হৃদযন্ত্রেও ক্রিয়া বন্ধ হয়ে বুধবার মারা যান তিনি।

মারা যাওয়ার আগে অধ্যাপক আগরওয়াল গণমাধ্যমকে বলেছিলেন, ‘আমি প্রধানমন্ত্রী ও জলসম্পদ মন্ত্রনালয়ে গিয়ে গঙ্গা নদীতে সৃষ্টি হওয়া সমস্যা নিয়ে অনেকগুলো চিঠি দিয়েছি। কিন্তু তারা উত্তর দেয়নি। এরপর আমি আমরণ অনশন শুরু করেছি। আমি গঙ্গা নদীর জন্য নিজের প্রাণ উৎসর্গ করার জন্য প্রস্তুত। আমার মৃত্যু পর্যন্ত এই অনশন চলবে।’এদিকে তার আমরণ অনশন ভাঙ্গাতে উত্তরখণ্ডের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী রমেশ পোখরিয়াল কয়েকবার চেষ্টা চালিয়ে বিফল হয়েছে।

উল্লেখ্য, পশ্চিম উত্তর প্রদেশের মুজাফ্ফরনগর জেলার একটি কৃষক পরিবারে জন্মগ্রহণ করা জিডি আগরওয়াল সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে স্নাতক সম্পন্ন করে ক্যালিফর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডক্টরেট ডিগ্রী লাভ করেছিলেন। তিনি ভারতের কেন্দ্রীয় দূষণ নিয়ন্ত্রণ বোর্ডের সদস্য সম্পাদক হিসাবে মনোনিত হয়েছিলেন। গান্ধীবাদী আদর্শে নিজেকে প্রতিষ্ঠা করা আগরওয়াল ২০১১ সনে সন্ন্যাস ধারণ করে নির্মল প্রদা বোর্ডের সঙ্গে যুক্ত হয়ে গঙ্গা নদীকে পবিত্র এবং দূষণমুক্ত করার জন্য নিজেকে নিয়োজিত করেছিলেন।

খবরঃ আমাদের সময়

Share Button