মাহি বি চৌধুরী জানলেন কীভাবে !!

মতামত
Share Button

মাহি বি চৌধুরী জানলেন কীভাবে !!

চমকপ্রদ এক ঘটনা ঘটে গেছে গতকাল রাত আটটার দিকে রাজধানীর বারিধারায় বিকল্প ধারা সভাপতি বি. চৌধুরীর বাসায়। সেখানে যুক্তফ্রন্ট ও জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার মধ্যে বিভিন্ন ইস্যুতে বৈঠক চলছিল। বিএনপির প্রতিনিধি হিসেবে বৈঠকে অংশ নেন দলের ভাইস চেয়ারম্যান ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু। বৈঠক চলছিল, হঠাৎ বি. চৌধুরীর ছেলে মাহী বি. চৌধুরীর কাছে বাইরে থেকে ফোন আসায় তিনি বৈঠক থেকে বের হয়ে যান। একটু পরে আবার বৈঠক কক্ষে ঢুকে ইশারায় বি চৌধুরীকে বাইরে ডেকে নিয়ে যান তিনি।

রুমের বাইরে বাবা-ছেলের কথোপকথন শেষে বৈঠক কক্ষে বি. চৌধুরী ও মাহি বি. চৌধুরী ঢুকে আমন্ত্রিত নেতাদের মোবাইল ফোন কক্ষের বাইরে রাখার অনুরোধ করেন। কারন হিসেবে তারা বলেন, ‘উপস্থিত নেতাদের মধ্যে কোন একজনের মোবাইল লন্ডনের একটি ফোনে যুক্ত আছে।’ মানে হলো, বৈঠকের আলাপ আলোচনা লন্ডনে কেউ শুনছিলেন। এ তথ্য জানিয়ে বি. চৌধুরী উপস্থিত সকলের সব ফোন বন্ধ করে বাইরে রেখে দেওয়ার জন্য বলেন। এরপর নেতাদের কাছ থেকে প্রায় ১০-১২ টি ফোন পাশের কক্ষে এনে রাখা হয় এবং পরে সব ফোন বন্ধ করে দেয়া হয়। এভাবে কয়েক মিনিট চলার পর আস্থাহীনতায় বৈঠক স্থগিত করে দেন বি চৌধুরী।

• >>> সত্যিই খুব চমকপ্রদ ঘটনা। কিন্তু এই ঘটনা অনেক প্রশ্নের জন্ম দিয়েছে। জন্ম দিয়েছে অনেক সন্দেহের।

•• ‘বাইরে থেকে ফোন’ এলে মাহি জানতে পারেন, ‘উপস্থিত নেতাদের মধ্যে একজনের ফোন লন্ডনের একটি নম্বরে যুক্ত আছে।’ বাইরে থেকে ফোন করে মাহিকে এ তথ্য কে জানালো ?

•• যতদূর জানি, কেবলমাত্র সরকারের গোয়েন্দা সংস্থাই ট্রাকিং করে তাৎক্ষনিক জানতে পারে কার নম্বর কোথায় কানেক্ট করা আছে। তাহলে কি মাহির সাথে সরকারের গোয়েন্দা সংস্থার যোগাযোগ আছে ?

•• ধরে নিলাম ফোনের অপর প্রান্তে লন্ডনে তারেক রহমান ছিলেন। বিএনপি তো ঐক্য প্রক্রিয়ার সবচেয়ে বড় এবং শক্তিশালী দল। লন্ডনে বসে তারেক রহমান তো বৈঠকের আপডেট জানতে চাইতেই পারেন, কোনো পরামর্শ থাকলেও দিতে পারেন। তাহলে ‘কোনো একটি নম্বর লন্ডনের একটি নম্বরে যুক্ত আছে’ এমন খবর পাওয়ার পর সব মোবাইল সব নেতার কাছ থেকে নিয়ে একসাথ করে তা বন্ধ করে দেয়ার কারন কি ?

•• মাহির কাছে যারা ‘কোনো একটি নম্বর লন্ডনের একটি নম্বরে যুক্ত আছে’ মর্মে খবর জানিয়েছে, তাঁরাই কি মোবাইল বন্ধ করে দিতে বলেছে ?

•• যদি ধরে নেই, মাহি তাদের বাড়িতে শক্তিশালী কোন ট্রাকিং ডিভাইস লাগিয়েছে। তার মাধ্যমে হয়তো ঐ তথ্য সে পেয়েছে। যদি এটা সত্যি হয় তাহলে প্রশ্ন জাগে, বি চৌধুরী বা তার ছেলে মাহি কি জোট নেতাদের বিশ্বাস করেন না ? বৈঠক চলাকালীন ঐ ডিভাইস চালু করে রেখেছিলেন কেন ??

•• নিজেদেরকেই নিজেরা বিশ্বাস করতে পারেননা, জনগন আপনাদের বাপ ছেলেকে বিশ্বাস করবে কেন ?

•• গনতন্ত্র প্রতিষ্ঠার কথা আপনারা (বাপ-ছেলে) বলছেন কিন্তু আপনাদের ১৫/২০ জনের দলেই তো আপনারা গনতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করতে পারেননি (বি চৌধুরী একাধারে ১৬/১৭ বছর ধরে দলের সভাপতি), তাহলে ১৬ কোটি মানুষের দেশে গনতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করবেন কীভাবে ?

•• দূর্নীতির বিরুদ্ধে আপনারা (বাপ-ছেলে) কথা বলেন, কিন্তু আপনাদের দলের মহাসচিব মেজর (অব.) মান্নান ৫১৮ কোটি টাকা দূর্নীতির দায়ে অভিযুক্ত। দুদক তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলবও করেছে। ১০০০ বা ১৫০০ স্কয়ার ফিটে অবস্থিত আপনাদের দলকেই যেখানে আপনারা দূর্নীতিমূক্ত করতে পারেননি, ৫৬০০০ বর্গমাইলের বাংলাদেশেকে দূর্নীতিমুক্ত করবেন কীভাবে ??

Masood Sayedee – মাসুদ সাঈদী

Share Button