কমলাপুরে দ্বিতীয় দিনও উপচেপড়া ভিড়

এক্সক্লুসিভ
Share Button

ঈদুল আজহার আগাম ট্রেনের টিকিট বিক্রির দ্বিতীয় দিন আজ বৃহস্পতিবারও কমলাপুর রেলস্টেশনে টিকিটপ্রত্যাশীদের উপচেপড়া ভিড় দেখা গেছে। মধ্যরাত থেকেই রেলস্টেশনে দীর্ঘলাইনে দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করছেন হাজারও মানুষ।

আজ বিক্রি হচ্ছে ১৮ আগস্টের টিকিট। এভাবে ৯ আগস্ট ১৮ আগস্টের, ১০ আগস্ট ১৯ আগস্টের, ১১ আগস্ট ২০ আগস্টের ও ১২ আগস্ট ২১ আগস্টের অগ্রিম টিকিট দেয়া হবে। ১৫ আগস্ট ২৪ আগস্টের, ১৬ আগস্ট ২৫ আগস্টের, ১৭ আগস্ট ২৬ আগস্টের, ১৮ আগস্ট ২৭ আগস্টের ও ১৯ আগস্ট ২৮ আগস্টের ফিরতি টিকিট দেয়া হবে বলে জানান রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ।

কাউন্টারের সামনে গিয়ে দেখা গেছে, ভোর থেকেই অনেকে এসে লাইনে দাঁড়ান। প্রতিটি কাউন্টারের সামনে থেকে টিকিটপ্রত্যাশীদের দীর্ঘলাইন গিয়ে ঠেকেছে স্টেশনের বাইরে। সেখানে শুধু টিকিটপ্রত্যাশী মানুষ আর মানুষ। বিগত বছরগুলোর মতো এবারও ১০ দিন আগে থেকে শুরু হয়েছে ট্রেনের আগাম টিকিট বিক্রি।

কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনের ম্যানেজার সীতাংশু চক্রবর্তী বলেন, আগাম টিকিট বিক্রিতে যেন কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে তার জন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীসহ রেলওয়ের নিজস্ব বাহিনী তৎপর রয়েছে।

ঢাকা ও চট্টগ্রাম স্টেশন থেকে বিশেষ ব্যবস্থাপনায় সকাল ৮টা থেকে টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে। কমলাপুর টিকিট কাটার জন্য যে ২৬টি কাউন্টার খোলা হয়েছে, তার মধ্যে দুটি নারীদের জন্য সংরক্ষিত।

রেল সূত্রে জানার যায়, এবারও মোট টিকিটের ৬৫ শতাংশ দেয়া হচ্ছে কাউন্টার থেকে। বাকি ৩৫ শতাংশের ৩০ শতাংশ অনলাইন ও মোবাইলে। ৫ শতাংশ ভিআইপি ছাড়াও রেল কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য বরাদ্দ রয়েছে।

কালোবাজারে টিকিট বিক্রি রোধে তৎপর রয়েছেন র‌্যাব, পুলিশ, রেলওয়ে পুলিশ ও আনসার সদস্যরা।

Share Button